ঘটা’ করে সভাপতি-সম্পাদকের পদ অকার্যকর ঘোষণা অগণতান্ত্রিক বলে দাবি অনেকের

0
95

স্টাফ রিপোর্টার
শুক্রবার সন্ধায় নারায়ণগঞ্জ মহানগর আওয়ামীলীগের জরুরী সভায় বন্দরের (১৯ হতে ২৭নং পর্যন্ত) ৯টি ওয়ার্ডের আ’লীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকদের পদ সর্বসম্মতিক্রমে অকার্যকর ঘোষণা করার ঘটনায় সর্বত্রই তোলপাড় সৃস্টি হয়েছে। রোববার এ সংক্রান্তে পত্রিকায় সংবাদ পড়ে ৯টি ওয়ার্ডেরসহ বন্দরের সর্বস্তরের নেতা-কর্মীদের মাঝে আলোচনা-সমালোচনার ঝড় বইতে শুরু করছে। নাম প্রকাশ না করার শর্তে বন্দরের জনৈক প্রবীণ আওয়ামীলীগ নেতা জানান,বন্দরের ৯টি ওয়ার্ডের সভাপতি-সাধারণ সম্পাদকদেরকে এভাবে অকার্যকর ঘোষণা দেয়াটা কোন সাংগঠনিক নিয়মে পড়েনা।

এটা সম্পূর্ণ অগণতান্ত্রিক প্রক্রিয়ায় সিদ্ধান্ত দেয়া হয়েছে। আন্ততঃ বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের যে কোন কমিটিতে ইচ্ছে করলেই যে কাউকে পদ দেয়াও যাবেনা আবার ইচ্ছে করলেই তাকে বাদও করা যাবেনা। পদ দেয়া এবং নেয়া দু’টোই গঠনতন্ত্র অনুযায়ীই হবে। মহানগর আওয়ামীলীগের সভাপতি একজন বিজ্ঞ রাজনীতিবিদ হয়ে এরূপ সিদ্ধান্ত নেয়ার বিষয়টি সত্যিকার অর্থেই বেমানান।

সূত্র মতে,বিগত সিটি নির্বাচনের প্রাক্কালে বন্দরের ১৯ হতে ২৭নং ওয়ার্ডে আওয়ামীলীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক হিসেবে ১৮জনের নাম তাৎক্ষণিকভাবে ঘোষণা দেয় নারায়ণগঞ্জ মহানগর আওয়ামীলীগ। ওইসকল পদ ঘোষণা নিয়ে ওয়ার্ডগুলোতে নানা সমালোচনা দেখা দেয়। এসব বিষয় বিবেচনা করে শুক্রবার মুজিবনগর দিবস উপলক্ষ্যে জরুরী সভায় মহানগর আওয়ামীলীগের সভাপতি আলহাজ¦ আনোয়ার হোসেনের সভাপতিত্বে জরুরী সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় গুরুত্বপূর্ণ আলোচনা করেন সাধারণ সম্পাদক এ্যাডভোকেট খোকন সাহা,সহ-সভাপতি,শেখ হায়দার পুতুল,রোকনউদ্দিন আহাম্মদ,আলহাজ¦ নূরুল ইসলাম চৌধুরী,সাংগঠনিক সম্পাদক এ্যাডভোকেট মাহমুদা মালা,যুগ্ম সম্পাদক আহসান হাবিব,জিএম আরমান,যুব ও ক্রীড়া বিষয়ক সম্পাদক হুমায়ূন কবির মৃধা,মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক সম্পাদক বীরমুক্তিযোদ্ধা সামিউল্লাহ মিলন,বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক বীরমুক্তিযোদ্ধা আইয়ূব আলী,মজিবুর রহমান,সদস্য বারী ভূইয়া,সাখাওয়াত হোসেন সুমন,নাজমুল আলম সজল,চঞ্চল,কামরুল হাসান মুন্নাসহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ। সভায় মুজিনগর দিবস পালণের লক্ষ্যে মহানগর আওয়ামীলীগ ও সহযোগী সংগঠনের নেতৃবৃন্দকে আন্তরিকভাবে বর্ধিত কর্মসূচী পালণের সিদ্ধান্ত গৃহিত হয়। একইসাথে নারায়ণগঞ্জ সিটি নির্বাচনকালে গঠিত বন্দরের ১৯ হতে ২৭নং ওয়ার্ডে আওয়ামীলীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকদের পদসমূহ সর্বসম্মতিক্রমে অকার্যকর ঘোষণা দেয়া হয়।

একটি উত্তর দিন